রিজওয়ান-ফাহিমের ব্যাটে ‘লজ্জা’ এড়াল পাকিস্তান

 স্পোর্টস ডেস্ক 
২৯ ডিসেম্বর ২০২০, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

ব্যাটিংয়ের সময় শাহিন আফ্রিদির গোলার মতো বলের আঘাতে তার ডান পায়ের চতুর্থ আঙুলে চিড় ধরেছে। কিন্তু নিল ওয়াগনার সহজে দমে যাওয়ার পাত্র নন। এমন মারাত্মক চোট নিয়েই কাল বে ওভালের বাইশ গজে আগুন ঝরালেন কিউই পেসার। দলের বাকি তিন পেসারও তার সঙ্গে ধ্বংসযজ্ঞে যোগ দেয়ায় ফলো-অন এড়ানো দূর অস্ত, একশ’ করাই দায় হয়ে পড়ে পাকিস্তানের। চতুর্মুখী আক্রমণে পাকিস্তানের ব্যাটিং তখন বিপর্যস্ত। প্রথম ইনিংসে নিউজিল্যান্ডের ৪৩১ রানের জবাবে ৮০ রানেই নেই ছয় উইকেট। দারুণ ব্যাটিংয়ে সেই ধ্বংসস্তূপ থেকে দলকে উদ্ধার করেন ফাহিম আশরাফ ও মোহাম্মদ রিজওয়ান। তাদের ব্যাটে ভর করে পাকিস্তান ফলো-অনের লজ্জা এড়ায়। ফলো-অন বাঁচিয়ে অবশ্য বেশিদূর যেতে পারেনি সফরকারীরা। সোমবার মাউন্ট মঙ্গানুই টেস্টের বৃষ্টি ভেজা তৃতীয়দিনে পাকিস্তানের প্রথম ইনিংস থেমেছে ২৩৯ রানে। ১৯২ রানে এগিয়ে আজ নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংস শুরু করবে নিউজিল্যান্ড।

এক উইকেটে ৩০ রানে দিন শুরু করা পাকিস্তান ৮০ রানে ছয় উইকেট হারানোর পর রিজওয়ান ও ফাহিম সপ্তম উইকেটে যোগ করেন ১০৭ রান। ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক রিজওয়ানের ব্যাট থেকে আসে ৭১ রানের দায়িত্বশীল ইনিংস। অধিনায়ক রানআউট হওয়ার পর একাই দলকে ২৩৯ পর্যন্ত নিয়ে যান ফাহিম। শেষ ব্যাটসম্যান হিসেবে আউট হওয়ার আগে খেলেন ৯১ রানের ক্যারিয়াসেরা ইনিংস। নিউজিল্যান্ডের জেমিসন তিনটি এবং সাউদি, বোল্ট ও ওয়াগনার নিয়েছেন দুটি করে উইকেট।

নিউজিল্যান্ড প্রথম ইনিংস ৪৩১। পাকিস্তান প্রথম ইনিংস ২৩৯ (শান মাসুদ ১০, আবিদ আলি ২৫, মোহাম্মদ রিজওয়ান ৭১, ফাহিম আশরাফ ৯১। টিম সাউদি ২/৬৯, ট্রেন্ট বোল্ট ২/৭১, জেমিসন ৩/৩৫, ওয়াগনার ২/৫০)।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন