দেয়ার কথা ছিল অনেক, নেয়া হল ঢের

 স্পোর্টস ডেস্ক 
২৮ ডিসেম্বর ২০২০, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

ক্রীড়াপ্রেমীদের যে বছরটা দু’হাত ভরে দেয়ার কথা ছিল, সেটাই শেষ পর্যন্ত কেড়ে নিল অনেক কিছু। পৃথিবীজুড়ে জেঁকে বসা করোনা মহামারীর বিষাক্ত ছোবলে ২০২০ সালে নানাভাবে বিপর্যস্ত হয়েছে ক্রীড়াঙ্গন।

এর মাঝেও আছে প্রতিকূল স্রোতে ঘুরে দাঁড়ানোর দারুণ কিছু গল্প। বছর শেষের সালতামামিতে আজ পেছন ফিরে তাকানো যাক আন্তর্জাতিক টেনিসে।

করোনার অভিশাপে ফুটবল, ক্রিকেটের মতো টেনিসেও নেমে এসেছিল স্থবিরতা। একে একে বিভিন্ন টুর্নামেন্ট পিছিয়ে যাওয়ার মাঝে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর এই প্রথম বাতিল হয়ে যায় টেনিসের সবচেয়ে অভিজাত গ্র্যান্ড স্লাম টুর্নামেন্ট উইম্বলডন। তবে দেরিতে হলেও কোর্টে গড়ায় ফরাসি ওপেন ও ইউএস ওপেন। গ্র্যান্ড স্লাম দুটি আয়োজনের ক্রমেও আসে পরিবর্তন। চিরকালের প্রথা ভেঙে ইউএস ওপেনের পর হয়েছে ফরাসি ওপেন।

সেখানেই রচিত হয়েছে এ বছর টেনিসের সবচেয়ে আলোচিত অধ্যায়টি। অপয়া ১৩কে সৌভাগ্যের প্রতীক বানিয়ে প্যারিসের লাল দুর্গে ইতিহাস গড়েন রাফায়েল নাদাল। পুরুষ এককে সর্বোচ্চ ২০টি গ্র্যান্ড স্লাম জয়ের রেকর্ডের একক মালিকানা ছিল সুইস কিংবদন্তি রজার ফেদেরারের।

গত অক্টোবরে নিজের ১৩তম ফরাসি ওপেন জিতে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীর সেই রেকর্ডে ভাগ বসান নাদাল। ফাইনালে আরেক মহাতারকা নোভাক জোকোভিচকে উড়িয়ে দিয়ে ক্যারিয়ারের ২০তম গ্র্যান্ড স্লাম শিরোপা উঁচিয়ে ধরেন এই স্প্যানিশ গ্রেট। নারী এককে বিস্ময়ের পসরা সাজিয়ে প্রথম পোলিশ হিসেবে গ্র্যান্ড স্লামের স্বাদ পেয়েছেন ১৯ বছর বয়সী ইগা সিয়াতেক।

এ বছর ক্যারিয়ারের প্রথম গ্র্যান্ড স্লাম জিতেছেন অস্ট্রিয়ার ডমিনিক থিমও। বছরের শুরুতে অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের ফাইনালে জোকোভিচের কাছে হারা থিমের দীর্ঘ অপেক্ষার অবসান হয় ইউএস ওপেনে। ফ্লাশিং মিডোয় পাঁচ সেটের রোমাঞ্চকর ফাইনালে আলেক্সান্দার জভেরেভকে হারিয়ে শেষ হাসি হাসেন থিম। নারী এককের শিরোপা ওঠে জাপানের নাওমি ওসাকার হাতে।

তবে লাইন জাজকে বল দিয়ে আঘাত করে টুর্নামেন্ট থেকে জোকোভিচের বহিষ্কৃত হওয়াই ছিল ইউএস ওপেনের সবচেয়ে আলোচিত ঘটনা। অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে জেতা ক্যারিয়ারের ১৭তম গ্র্যান্ড স্লাম ট্রফিই এ বছর জোকোভিচের একমাত্র বড় সাফল্য। বিগ থ্রি’র আরেক নক্ষত্র ফেদেরার টেনিস থেকে কার্যত দূরেই ছিলেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : ফিরে দেখা ২০২০

২৯ ডিসেম্বর, ২০২০
২৯ ডিসেম্বর, ২০২০