চোটের সঙ্গে সখ্য সাইফউদ্দিনের

 স্পোর্টস রিপোর্টার 
২৪ ডিসেম্বর ২০২০, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

বঙ্গবন্ধু টি ২০ কাপের আগে পায়ের গোড়ালির ইনজুরিতে পড়েছিলেন মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন। গ্রুপপর্বের শেষদিকে ফিরে সেরাটা দিতে পারেননি।

দুর্ভাগ্য পিছু ছাড়ছে না সাইফউদ্দিনের। টুর্নামেন্টের পর এমআরআই করিয়ে লিগামেন্টে সমস্যা ধরা পড়েছে। তিন সপ্তাহের জন্য চিকিৎসকদের পর্যবেক্ষণে রয়েছেন তিনি।

কাল মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে এই অলরাউন্ডার বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু কাপের সময় জৈব সুরক্ষাবলয়ে থাকায় এমআরআই করাতে পারিনি। সাধারণ ব্যথা কিছুদিন পর ঠিক হয়ে যাওয়ার কথা। সেটা না হওয়ায় এমআরআই করাই। সমস্যা ধরা পড়েছে।’

পর্যবেক্ষণের পর বোলিং ও ব্যাটিং পরীক্ষা নিয়ে সাইফউদ্দিনকে ছাড়পত্র দেবেন চিকিৎসকরা। চোটপ্রবণ এই অলরাউন্ডার বলেন, ‘গ্রেড ১ নাকি ২, জানি না। ইনজুরির সঙ্গে অভ্যস্ত হয়ে গেছি। অনূর্ধ্ব-১৫ থেকে ইনজুরির মধ্য দিয়ে আসছি। সেই ২০১০ সাল থেকে যখন বোর্ডের অধীনে খেলি, তখন সিটি ক্লাব মাঠে অনুশীলনের সময় পিঠে সমস্যা হয়। চোট মানিয়ে নিয়ে এগোতে পারাটাই আসল।’

২৪ বছর বয়সী সাইফউদ্দিন বলেন, ‘এভারেজ খেলোয়াড় হলে দু’এক বছর পর হয়তো হারিয়ে যাব। স্টার্ক, কামিন্স বা বুমরারা ১৪০-১৫০ কিলোমিটার গতিতে বল করতে পারে। আমি তো আর সেটা পারব না। কিন্তু ১৩৫-১৩৬ কি. গতিতে কিভাবে ভ্যারিয়েশন আনা যায়, সেই চেষ্টা করব। আমার দেয়ার অনেক বাকি আছে।’

তিনটি ওয়ানডে ও দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলতে ১০ জানুয়ারি ওয়েস্ট ইন্ডিজ বাংলাদেশে আসবে। ক্যারিবীয়দের বিপক্ষে নিজেদের এগিয়ে রাখছেন সাইফউদ্দিন। তিনি বলেন, ‘সবশেষ ম্যাচগুলোতে আমরা তাদের বিপক্ষে জিতেছি। ঘরের মাটিতে খেলা হওয়ায় বাড়তি সুযোগ পাব। প্রেসিডেন্টস কাপ ও বঙ্গবন্ধু টি ২০ কাপে খেলেছি। আমরা ফেভারিট হিসেবে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে খেলব।’

ফাইনালে বৃষ্টি-উর্মি

বঙ্গবন্ধু জন্মশতবার্ষিকী ব্যাডমিন্টন র‌্যাংকিং টুর্নামেন্টে নারী এককের ফাইনালে উঠেছেন আর্মি ব্যাডমিন্টনের বৃষ্টি খাতুন এবং পাবনার উর্মি আক্তার। বুধবার শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ ইনডোর স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত সেমিফাইনালে বৃষ্টি ২১-১২ ও ২১-১৫ পয়েন্টে একই দলের ফাতেমা বেগমকে হারিয়ে ফাইনালে ওঠেন। অন্য সেমিফাইনালে উর্মি হারান আর্মি ব্যাডমিন্টনের রেহানা খাতুনকে। আজ পাঁচটি ইভেন্টের ফাইনাল। বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেবেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল এমপি।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন