জলবায়ু পরিবর্তনে ক্ষতি ১৫ হাজার কোটি ডলার
jugantor
জলবায়ু পরিবর্তনে ক্ষতি ১৫ হাজার কোটি ডলার
-ক্রিশ্চিয়ান এইড

  যুগান্তর ডেস্ক  

২৯ ডিসেম্বর ২০২০, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

২০২০ সালে জলবায়ুর প্রতিকূল অবস্থার কারণে বিশ্বকে চরম মূল্য দিতে হয়েছে। এ কারণে আর্থিক ক্ষতি হয়েছে ১৫ হাজার কোটি ডলার। চ্যারিটি সংস্থা ক্রিশ্চিয়ান এইড এক প্রতিবেদনে এমন তথ্য দিয়েছে।

সংস্থাটি জানায়, এ বছর জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে সৃষ্ট ১০টি প্রাকৃতিক দুর্যোগে ক্ষতির বীমাকৃত মূল্য প্রায় ১৫ হাজার কোটি ডলার। এ সময় প্রায় সাড়ে ৩ হাজার মানুষ প্রাণ হারিয়েছেন এবং ১ কোটি ৩৫ লাখ মানুষ বাস্তুচ্যুত হয়েছেন। এসব দুর্যোগের ৬টির শিকার এশিয়া। চীন ও ভারতের বন্যায় ৪ হাজার কোটি ডলারের বেশি ক্ষতি হয়েছে। টানা এক মাসের মৌসুমি বৃষ্টিপাতে সৃষ্ট বন্যায় ভারতে ২ হাজারের বেশি প্রাণহানি হয়েছে, বাস্তুচ্যুত হয়েছেন লাখো মানুষ।

এ বছর বন্যায় বাংলাদেশের প্রায় এক চতুর্থাংশ পানির নিচে তলিয়ে গেছে। বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড় আম্পানে কয়েকদিনেই ১৩শ’ কোটি ডলারের ক্ষতি হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রে হ্যারিকেন ও দাবানলে ৬ হাজার কোটি ডলারের ক্ষতি হয়েছে। অস্ট্রেলিয়ার দাবানলে দেশটির ২০ ভাগ বন পুড়ে গেছে, মারা গেছেন হাজারো বন্যপ্রাণী।

আফ্রিকায় শস্যক্ষেত ও সবজি বাগানে পঙ্গপালের আক্রমণের ফলে ৮৫০ কোটি ডলারের ক্ষতি হয়েছে।

ফেব্রুয়ারিতে আয়ারল্যান্ড, ব্রিটেন ও কয়েকটি ইউরোপের দেশে আঘাত হেনেছে ঝড় সিয়ারা। এতে প্রায় ১৪জন প্রাণ হারিয়েছেন। ক্ষতি হয়েছে ২৭০ কোটি ডলারের। আটলান্টিকের হ্যারিকেনে প্রায় ৪০০ প্রাণহানি ও ৪ হাজার ১০০ কোটি ডলারের ক্ষতি হয়েছে। দক্ষিণ সুদানে বন্যায় ১৩৮ জনের প্রাণহানি হয়েছে, প্রায় পুরো বছরের খাদ্যশস্য পানিতে ভেসে গেছে। যার ডলার হিসেবে ক্ষতির পরিমাপ করা কঠিন।

ক্রিশ্চিয়ান এইড জানায়, এই প্রতিবেদনে শুধু প্রাণ ও সম্পদের বীমাকৃত মূল্যের ক্ষতি ধরা হয়েছে। বছরজুড়ে হওয়া প্রাকৃতিক দুর্যোগের বাস্তবিক ক্ষতির পরিমাণ আরও অনেক বেশি। কারণ বেশিরভাগ প্রাণ ও সম্পদই অবীমাকৃত।

এদিকে গেল মাসে দ্য ল্যানসেটের প্রতিবেদনে বলা হয়, নিু আয়ের দেশগুলোতে জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে আর্থিক ক্ষতির মাত্র ৪ শতাংশ বীমাকৃত, যেখানে উচ্চ-আয়ের দেশগুলোতে এই হার ৬০ শতাংশ।

জলবায়ু পরিবর্তনে ক্ষতি ১৫ হাজার কোটি ডলার

-ক্রিশ্চিয়ান এইড
 যুগান্তর ডেস্ক 
২৯ ডিসেম্বর ২০২০, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

২০২০ সালে জলবায়ুর প্রতিকূল অবস্থার কারণে বিশ্বকে চরম মূল্য দিতে হয়েছে। এ কারণে আর্থিক ক্ষতি হয়েছে ১৫ হাজার কোটি ডলার। চ্যারিটি সংস্থা ক্রিশ্চিয়ান এইড এক প্রতিবেদনে এমন তথ্য দিয়েছে।

সংস্থাটি জানায়, এ বছর জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে সৃষ্ট ১০টি প্রাকৃতিক দুর্যোগে ক্ষতির বীমাকৃত মূল্য প্রায় ১৫ হাজার কোটি ডলার। এ সময় প্রায় সাড়ে ৩ হাজার মানুষ প্রাণ হারিয়েছেন এবং ১ কোটি ৩৫ লাখ মানুষ বাস্তুচ্যুত হয়েছেন। এসব দুর্যোগের ৬টির শিকার এশিয়া। চীন ও ভারতের বন্যায় ৪ হাজার কোটি ডলারের বেশি ক্ষতি হয়েছে। টানা এক মাসের মৌসুমি বৃষ্টিপাতে সৃষ্ট বন্যায় ভারতে ২ হাজারের বেশি প্রাণহানি হয়েছে, বাস্তুচ্যুত হয়েছেন লাখো মানুষ।

এ বছর বন্যায় বাংলাদেশের প্রায় এক চতুর্থাংশ পানির নিচে তলিয়ে গেছে। বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড় আম্পানে কয়েকদিনেই ১৩শ’ কোটি ডলারের ক্ষতি হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রে হ্যারিকেন ও দাবানলে ৬ হাজার কোটি ডলারের ক্ষতি হয়েছে। অস্ট্রেলিয়ার দাবানলে দেশটির ২০ ভাগ বন পুড়ে গেছে, মারা গেছেন হাজারো বন্যপ্রাণী।

আফ্রিকায় শস্যক্ষেত ও সবজি বাগানে পঙ্গপালের আক্রমণের ফলে ৮৫০ কোটি ডলারের ক্ষতি হয়েছে।

ফেব্রুয়ারিতে আয়ারল্যান্ড, ব্রিটেন ও কয়েকটি ইউরোপের দেশে আঘাত হেনেছে ঝড় সিয়ারা। এতে প্রায় ১৪জন প্রাণ হারিয়েছেন। ক্ষতি হয়েছে ২৭০ কোটি ডলারের। আটলান্টিকের হ্যারিকেনে প্রায় ৪০০ প্রাণহানি ও ৪ হাজার ১০০ কোটি ডলারের ক্ষতি হয়েছে। দক্ষিণ সুদানে বন্যায় ১৩৮ জনের প্রাণহানি হয়েছে, প্রায় পুরো বছরের খাদ্যশস্য পানিতে ভেসে গেছে। যার ডলার হিসেবে ক্ষতির পরিমাপ করা কঠিন।

ক্রিশ্চিয়ান এইড জানায়, এই প্রতিবেদনে শুধু প্রাণ ও সম্পদের বীমাকৃত মূল্যের ক্ষতি ধরা হয়েছে। বছরজুড়ে হওয়া প্রাকৃতিক দুর্যোগের বাস্তবিক ক্ষতির পরিমাণ আরও অনেক বেশি। কারণ বেশিরভাগ প্রাণ ও সম্পদই অবীমাকৃত।

এদিকে গেল মাসে দ্য ল্যানসেটের প্রতিবেদনে বলা হয়, নিু আয়ের দেশগুলোতে জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে আর্থিক ক্ষতির মাত্র ৪ শতাংশ বীমাকৃত, যেখানে উচ্চ-আয়ের দেশগুলোতে এই হার ৬০ শতাংশ।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন