আয়োজন

  
২৯ ডিসেম্বর ২০২০, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

হানি নিয়ে স্যাফোলা

বহুজাতিক এফএমসিজি প্রতিষ্ঠান ম্যারিকো বাংলাদেশ লিমিটেড সম্প্রতি বাজারে নিয়ে এসেছে ১০০ শতাংশ পিওর স্যাফোলা হানি। সমসাময়িক পরিস্থিতি সুস্বাস্থ্য ও হাইজিন বিষয়ে নতুনভাবে ভাবতে শিখিয়েছে। ইম্যুনিটি ও সুস্থতা সম্পর্কে ক্রমবর্ধমান এ সচেতনতাই সুস্থ, সবল জীবনের সহায়ক। সময়ের দাবিতে পিওর ও ইম্যুনিটি বুস্টিং খাবার গ্রহণের যে সচেতনতা তৈরি হয়েছে, এ ক্ষেত্রে মধুসহ অন্যান্য পুষ্টিকর খাবারে অনেক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে এবং ইম্যুনো-সমৃদ্ধ আদর্শ খাবারের গুরুত্ব এখন সবচেয়ে বেশি।

স্যাফোলা হানি প্রস্তুত করা হয় সুস্থ, সবল থাকার প্রয়োজনীয়তা পূরণের লক্ষ্যকে সামনে রেখে এবং রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধির জন্য এনএমআর (নিউক্লিয়ার ম্যাগনেটিক রিজোন্যান্স) পরীক্ষায় পরীক্ষিত যা নিশ্চিত করে এটি ভেজালমুক্ত ও অতিরিক্ত চিনিমুক্ত। নতুন স্যাফোলা হানি সম্পর্কে ম্যারিকো বাংলাদেশ লিমিটেডের ম্যানেজিং ডিরেক্টর আশীষ গোপাল বলেন, ‘ম্যারিকো তার ফুড পোর্টফোলিও আরও বিস্তৃত করল। বর্তমান সময়ে কী করছি আর কী খাচ্ছি সে ব্যাপারে আমরা সবাই অত্যন্ত সচেতন। সবশেষে একজন ভোক্তার অবশ্যই খাবারের বিশ্বাসযোগ্যাতা যাচাই করে নেয়া উচিত, বিশেষ করে তা যদি হয় ইম্যুনিটি বুস্টিং খাদ্যপণ্য।

ব্যাং’র হুডি

ফ্যাশনেবল ক্যাজুয়াল বা ফরমাল ফুল স্লিপ শার্ট, ফুল স্লিপ টি-শার্ট, হুডি, জ্যাকেট, ব্লেজার, পোলো শার্ট, ফতুয়া, কাতুয়া, প্যান্ট, পাঞ্জাবিসহ নানা রকম মানানসই পোশাক রয়েছে ব্যাং-এ। follwo us on : facebookhttps://www.facebook.com/bang2006

আর্ট’র শীত আয়োজন

কাপড়ের ক্ষেত্রে প্রাধান্য দেয়া হয়েছে সম্পূর্ণ কটন কাপড়। তারুণ্যের চাহিদা বিবেচনায় শতভাগ সুতি কাপড়ে এবং হালকা কালারের ভেতর পোশাকের ডিজাইনে আনা হয়েছে বৈচিত্র্য। Facebook : https://www.facebook.com/artbd

২৭ বছরে রঙ বাংলাদেশ

২০২১ সালে বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী। উপরন্তু যে মানুষটির কল্যাণে আমরা পেয়েছি এই দেশ, সহস্র বছরের শ্রেষ্ঠ সেই মানুষটির জন্মশতবার্ষিকীও। দুটি মহান উপলক্ষকে সামনে রেখে রঙ বাংলাদেশ আবার আশায় বলীয়ান হতে চায়। প্রতীক্ষা করতে চায় ইতিবাচক ভবিষ্যতের। সমান উদ্দীপনায় রাঙাতে চায় সময়কে; যে ব্রত নিয়ে ২৬ বছর আগে শুরু হয়েছিল চারজন তরুণের স্বপ্নযাত্রা।

নব্বই দশকের শুরুতেই ফ্যাশন হাউস রঙের যাত্রা শুরু নারায়ণগঞ্জের চাষাড়ার সান্ত্বনা মার্কেটে ছোট্ট পরিসরে। পরিস্থিতিকে মেনে নিতেই এক সময় রঙ হয়েছে রঙ বাংলাদেশ। ঠিক পাঁচ বছর আগে। ছন্দপতনের বিহ্বলতা কাটিয়ে উঠে সূচনাদিনের প্রত্যয়েই রঙ বাংলাদেশ এগিয়েছে। অবশ্য সেটি সম্ভব হয়েছে দেশজুড়ে ছড়িয়ে থাকা রঙ অনুরাগীদের সমর্থন আর পৃষ্ঠপোষণার জন্য।

সারা লাইফস্টাইল

‘সারা’ লাইফস্টাইল নিয়ে এসেছে ৮৬.১ শতাংশ পার্টিক্যাল ফিল্টার সক্ষমসহ ব্রেদিবিলিটি রেজিস্টেন্স 11.2 Pa/Cm2 এর ৩ লেয়ারের প্রটেকটিভ কাপড়ের ফেস মাস্ক (নন মেডিকেল)। আরামদায়ক এবং কার্যকরী এ ফেস মাস্কটি সংকট নিরাময়ে হতে পারে প্রতিদিনের ব্যবহার্য অংশ।

লা রিভে কিডস কালেকশন : গ্রেট স্মোকি

ক্যান্ডিনেভিয়া অঞ্চলের লোকগল্পের উপাদান আর গ্রেট স্মোকি মাউন্টেইনে রেঞ্জের বদলে যাওয়া রঙ সাজিয়ে তৈরি করা হয়েছে শিশুদের উইন্টার কিডস কালেকশন; গ্রেট স্মোকি। চকোলেট, পিচ, জলপাই ও ফরেস্ট গ্রিন, হলুদ, খয়েরি, লাল, ক্রিম, নীল এবং নীলচে ছাইরঙা প্যালেট ব্যবহার করা হয়েছে গল্পগুলো ফোটাতে। আর মোটিফ হিসেবে উঠে এসেছে শিশুদের পছন্দের সব চরিত্র ও ক্যারিকেচার, জ্যামিতিক মোটিফ আর পাহাড়ি ফুল-পাতার প্রিন্ট। ছেলে শিশুদের জন্য সোয়েট শার্ট, সোয়েটার, পুলওভার ভেস্ট, লং স্লিভ হুডি শার্ট, জ্যাকেট, টিশার্ট, লং স্লিভ টি-শার্ট, লং স্লিভ হুডি টি-শার্ট, এবং লং স্ল্নিভ পোলো থাকবে।

ভিজিট করুন www.lerevecraye.com এবং www.facebook.com/lerevecraye

হবিগঞ্জে যাত্রা করল লেপার্ড

সম্প্রতি হবিগঞ্জ টাউন হল রোডে নতুন ফ্যাশন ব্র্যান্ড লেপার্ডের উদ্বোধন করেন হবিগঞ্জ জেলা ক্রীড়া সংস্থার অতিরিক্ত সাধারণ সম্পাদক ও যুবলীগ হবিগঞ্জ জেলা শাখার ক্রীড়া সম্পাদক মো. বদরুল আলম। এ ছাড়া উপস্থিত ছিলেন ফ্যাশন ব্র্যান্ড আর্টিজ্যানের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা রাকিব হোসেনসহ স্থানীয় সুধীজন। এ ফ্যাশন ব্র্যান্ডে পাওয়া যাবে সব বয়সীদের নতুন সব ডিজাইনের রকমারি ফ্যাশন পণ্য।

বড় পরিসরে আর্টিজ্যান

হবিগঞ্জে আর্টিজ্যানের নতুন শোরুম উদ্বোধন করেন হবিগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য ও হবিগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট মো. আবু জাহির। এ ছাড়া অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ফ্যাশন ব্র্যান্ড আর্টিজ্যানের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ও ডিজাইনার রাকিব হোসেন এবং স্থানীয় সুধীজন।

কে-ক্র্যাফটের বিয়ের পোশাক

বিয়ের মৌসুম মাথায় রেখে কে-ক্র্যাফট সাজিয়েছে এবারের ব্রাইডাল কালেকশন। এ সংগ্রহে থাকছে বিয়ের পোশাকের নানা আয়োজন। বর ও কনের পানচিনি, গায়ে হলুদ, মেহেদি থেকে শুরু করে আকদ, বিয়ে এবং বিয়ে পরবর্তী বউভাত, সব অনুষ্ঠানের জন্যই থাকছে বিশেষ বিশেষ পোশাকের আয়োজন। আছে বর ও তার নিকটজনের জন্য পাঞ্জাবি, চুড়িদারসহ পোশাকের সেট। আবার শুধু আলাদা করে পাঞ্জাবি বা শেরওয়ানি কাট পাঞ্জাবি, লং কটিও থাকছে। কনে ও সঙ্গীদের জন্য থাকছে গায়ে হলুদ ও বিয়ের দিনে পরার মতো তৈরি নানা আকর্ষণীয় ডিজাইনের শাড়ি। কনে ও তার উপহার বাক্সে দেয়ার উপযোগী শাড়ি ও সালোয়ার কামিজ। এছাড়াও কে-ক্র্যাফট ক্রেতার চাহিদা ও বাজেট অনুযায়ী শাড়ি ও পাঞ্জাবি, পাগড়ি, নাগরা অর্ডার নিয়ে গ্রাহকদের পছন্দের ডিজাইনে তৈরি করে দিচ্ছে। শিশুদের জন্য বিয়ে বা হলুদের উৎসবধর্মী পোশাকও অর্ডার করে বানিয়ে নেয়া যাবে। তবে এর জন্য ১৫ থেকে ২০ দিন আগেই ফরমায়েশ করতে হবে।

বিয়ের বাক্সে উপহার দেয়ার জন্য থাকছে টান (ঞঅঘ)-এর তৈরি পার্টি ব্যাগ, বেল্ট, ওয়ালেট। মিলিয়ে নিতে পারেন বিয়ের দাওয়াতে পরার উপযোগী অর্নামেন্ট ও জুয়েলারি। বিয়েতে উপহার দেয়ার জন্য পাচ্ছেন নানা ডিজাইনের ঘর সাজানোর সামগ্রী, ফটোফ্রেম, আয়না, পর্দা, কুশনসহ নানা পণ্য। যোগাযোগ ০১৯২২১১৭৪২১।

এবিএস ক্যাবলস্

এবিএস ক্যাবলস্ লিমিটেডের সম্প্রতি বিএসটিআইয়ের কাছ থেকে মর্যাদাপূর্ণ ISO: 9001 এবং ISO: 14001 সনদ গ্রহণ করেছে। এটি পণ্যের গুণগত মান ও পরিবেশ ব্যবস্থাপনার দিক থেকে কোম্পানির নিরলস প্রচেষ্টার একটি স্বীকৃতি। বিএসটিআই বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো এবিএস ক্যাবলস্ লিমিটেডের পণ্য অপটিক্যাল ফাইবার ক্যাবলসের বাংলাদেশ মান অনুমোদন করেছে। বিএসটিআইয়ের মহা-পরিচালক নজরুল আনোয়ার এবিএস ক্যাবলস লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক কাউসার জামান বাপ্পীর হাতে আনুষ্ঠানিকভাবে সনদপত্র তুলে দেন। ওই অনুষ্ঠানে বিএসটিআই এবং এবিএস ক্যাবলস লিমিটেডের শীর্ষ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন