হ্যালো...

আর রাজনীতি করব না

সঙ্গীতশিল্পী হিসেবেই জনপ্রিয় মনির খান। তবে রাজনীতিতেও তার পদচারণা ছিল। প্রথম অ্যালবাম প্রকাশের পর থেকে পেশাদারি সঙ্গীতজীবনের ২৫ বছর পূর্তি উপলক্ষে সম্প্রতি এক বিশেষ অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন এ সঙ্গীতশিল্পী। রয়েছে নতুন গানের কাজ নিয়েও ব্যস্ততা। এসব বিষয় নিয়েই আজকের ‘হ্যালো...’ বিভাগে কথা বলেছেন তিনি।
 সোহেল আহসান 
২৯ নভেম্বর ২০২০, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ
ছবি সংগৃহীত
ছবি সংগৃহীত

* করোনাকাল কেমন কাটছে?

** ভালো থাকার চেষ্টা করছি। আগের মতো হয়তো স্বাভাবিক জীবনযাপন করতে পারছি না। তারপরও কাজ নিয়েই ব্যস্ত আছি। কারণ কাজ ছাড়া অলস হয়ে থাকতে আমার ভালো লাগে না। তাই সতর্কতার সঙ্গে পথ চলছি, সেই সঙ্গে গানের কাজও করে যাচ্ছি।

* পেশাদারি সঙ্গীত জীবনের ২৫ বছর পূর্তির আয়োজন করেছেন সম্প্রতি। দীর্ঘ এ পথচলায় প্রাপ্তি কতটুকু?

** পরিকল্পনা অনুযায়ীই অনুষ্ঠানটি সফলভাবে শেষ করতে পেরেছি। সঙ্গীতজীবনের বিভিন্ন সময়ে আমার কাজে নেপথ্যে যারা সহযোগিতা করেছেন, তাদের এ আয়োজনটি উৎসর্গ করেছিলাম। সবাই আমার এ বিষয়টিকে বাহবা জানিয়েছেন। প্রাপ্তির কথা বলতে গেলে মানুষের ভালোবাসা পেয়েছি। এটাই আমার কাছে অনেক বড় এবং সেরাপ্রাপ্তি। আমার মনে হয় পৃথিবীতে সৌভাগ্যবানরাই মানুষের ভালোবাসা পান, আমি সেই সৌভাগ্যবানদের একজন। এজন্য সৃষ্টিকর্তার প্রতি কৃতজ্ঞ।

* একশ’ গান তৈরির একটি প্রকল্প হাতে নিয়েছেন। এর কার্যক্রম কেমন চলছে?

** পরিকল্পনা মতোই এগিয়ে যাচ্ছে। আমার এমকে মিউজিক ও মনির খান অফিসিয়াল নামের দুটি ইউটিউব চ্যানেলে গানগুলো প্রকাশ হচ্ছে। এরই মধ্যে দশটি গান ভিডিওসহ প্রকাশ হয়েছে। এখন পর্যন্ত এ প্রকল্পের ৪০টি গানের রেকর্ডিং সম্পন্ন হয়েছে। সেসব গানের ভিডিও তৈরি করছি পর্যায়ক্রমে। প্রকাশিত দশটি গানের জন্য শ্রোতাদের কাছ থেকেও ভালো সাড়া পাচ্ছি। আশা করছি সব গানই শ্রোতাদের পছন্দ হবে।

* টিভিতে লাইভ অনুষ্ঠানেও ইদানীং দেখা যাচ্ছে। নিয়মিত থাকবেন?

** করোনার কারণে অনেকদিন টিভি অনুষ্ঠানে অনিয়মিত ছিলাম। সম্প্রতি লাইভ গানের অনুষ্ঠান শুরু করেছি। শ্রোতাদের পক্ষ থেকে অনেকদিন ধরেই অনুরোধ পাচ্ছিলাম টিভি অনুষ্ঠানে গাইবার জন্য। যেহেতু মঞ্চে গান গাওয়ার সুযোগ পাচ্ছি না, তাই বিকল্প হিসেবে টিভির লাইভ অনুষ্ঠানই শ্রোতাদের সঙ্গে যোগাযোগের একমাত্র ভরসা।

* ছবির গান করা কি কমিয়ে দিয়েছেন?

** একেবারেই না। করোনার কারণে সব ধরনের কাজই ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ছবির নির্মাণ সংখ্যাও কমে গেছে। তাই এ মাধ্যমে গান গাওয়ার ব্যস্ততাও কম আমার। তারপরও আলী আকরাম শুভ, শরীফ আহমেদসহ কয়েকজন সঙ্গীত পরিচালকের করা গান গেয়েছি। যেগুলো ছবিতে ব্যবহার করা হবে।

* একসময় রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। এ নিয়ে নতুন কোনো ভাবনা আছে?

** ছিলাম একসময়; কিন্তু ভবিষ্যতে আর কখনও রাজনীতি করব না। কারণ মানুষ আমাকে সঙ্গীতশিল্পী হিসেবেই বেশি চেনেন ও ভালোবাসেন। তাই আমি সঙ্গীতজীবনকেই চূড়ান্ত আশ্রয়স্থল হিসেবে বেছে নিয়েছি। তবে যাদের উৎসাহে রাজনীতিতে যুক্ত হয়েছিলাম তাদের সঙ্গে রাজনৈতিক যোগাযোগ না থাকলেও ব্যক্তিগত যোগাযোগ আছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন