হ্যালো...

সঙ্গীতাঙ্গনের কর্মকাণ্ড কিছুটা গতিশীল হয়েছে

প্রতিভা অন্বেষণ প্রতিযোগিতা দিয়ে সঙ্গীতাঙ্গনে আসেন কণ্ঠশিল্পী সানিয়া সুলতানা লিজা। ক্যারিয়ারের শুরুতে অন্যের গানে কণ্ঠ দিলেও এখন মৌলিক গান নিয়েই ব্যস্ত। করোনার মধ্যেও একাধিক নতুন গান প্রকাশ করেছেন। কিছুদিন আগেও তার নতুন গান প্রকাশ হয়েছে। বর্তমান ব্যস্ততা ও অন্যান্য বিষয় নিয়ে আজকের ‘হ্যালো...’ বিভাগে কথা বলেছেন তিনি
 সোহেল আহসান 
২৪ নভেম্বর ২০২০, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ
ছবি সংগৃহীত
ছবি সংগৃহীত

* করোনাকাল কেমন কাটছে?

** কিছুদিন আগ পর্যন্ত ঘরবন্দিই ছিলাম। এখন বাসার বাইরে যাচ্ছি প্রায় নিয়মিতই। সুস্থ স্বাভাবিকভাবেই সময় কাটছে। সাবধানতা অবলম্বন করেই কাজ করছি।

* কিছুদিন হৃদয় খানের সঙ্গে একটি গান করেছেন। এটি প্রকাশের পর সাড়া কেমন পাচ্ছেন?

** ‘ভাবনা’ শিরোনামের সেই গানটির কথা, সুর ও সঙ্গীতায়োজনের কাজটি এত সুন্দর সমন্বয় হয়েছে, প্রথমবার শোনার সঙ্গে সঙ্গেই গানটির প্রতি আকৃষ্ট হবেন। সময় যতই গড়াবে গানের শ্রোতার সংখ্যাও ততই বৃদ্ধি পেতে থাকবে। গানটিতে কণ্ঠ দেয়ার সময় থেকেই এটি নিয়ে আমার উচ্চাশা তৈরি হয়েছে।

* এখন থেকে নিয়মিত নতুন গান প্রকাশ করবেন?

** অবশ্যই। মনের খোরাক হলেও গান পেশাও বটে। এর বাইরে এখন অন্য কিছুই করছি না। এখন সঙ্গীতাঙ্গনের কর্মকাণ্ড কিছুটা গতিশীল হয়েছে। আমিও চারটি নতুন গান নিয়ে অপেক্ষা করছি। গানগুলোর রেকর্ডিংয়ের কাজ শেষ। এখন ভিডিও তৈরির জন্য অপেক্ষা করছি। আশা করি এসব গান শ্রোতাপ্রিয় হবে।

* ইনডোর স্টেজ অনুষ্ঠান অনেকেই শুরু করেছেন। এ নিয়ে আপনার পরিকল্পনা কী?

** গত মার্চ থেকেই স্টেজ অনুষ্ঠানে গাওয়া বন্ধ করেছিলাম। এখন যদি উন্মুক্ত মঞ্চে অনুষ্ঠানের অনুমতি পাওয়া যায় তাহলে আমিও গাব। যদিও ইনডোর অডিটরিয়ামে অনেক অনুষ্ঠান হচ্ছে। তবে এসব অনুষ্ঠানে গান গাওয়ায় আগ্রহ কম আমার। আশা করছি করোনার প্রকোপ কিছুটা কমলে স্টেজ অনুষ্ঠান শুরু হবে।

* টিভির লাইভ শোতে কয়েকদিন আগে গান গাইলেন। এ মাধ্যমে কি নিয়মিত গাইবেন?

** সময় এবং সুযোগ-সুবিধা মিললে কেন গাব না? দীপ্ত টিভির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে গান গেয়েছি। আগামী ২৬ নভেম্বর এনটিভিতে একক লাইভ অনুষ্ঠানে গাব। মূলত এটি দিয়েই টিভির লাইভ অনুষ্ঠানে গান গাওয়ার মিশন শুরু করছি। পর্যায়ক্রমে অন্য চ্যানেলগুলোতেও গাব।

* আপনার নিজস্ব ইউটিউব চ্যানেল আছে। সেটির কার্যক্রম কী?

** গানবিষয়ক কনটেন্টই এখানে প্রকাশ পায়। বিশেষ করে আমার মৌলিক গান যেগুলোর স্বত্ব আমার সেগুলোই এ চ্যানেলে আপলোড করি। শুরুতে গানের সংখ্যা কম থাকলেও ধীরে ধীরে চ্যানেলটি সমৃদ্ধ হচ্ছে। দর্শক-শ্রোতারাও আমার চ্যানেলের গান শুনছেন আগ্রহ নিয়ে। তাদের এ ভালোবাসাই আমাকে উদ্বুদ্ধ করছে নতুন গান প্রকাশের জন্য।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন