লেবানন প্রবাসীদের মানববন্ধনে পুলিশের লাঠিচার্জ

 ওয়াসীম আকরাম, লেবানন থেকে 
২২ ডিসেম্বর ২০২০, ০৯:৪২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

লেবাননের বৈরুতে বাংলাদেশ দূতাবাস প্রাঙ্গনে ২১ ডিসেম্বর বিক্ষোভ ও মানববন্ধন করে অবৈধ কাগজপত্রবিহীন প্রবাসী বাংলাদেশিরা। ডলার নয়, লেবানিজ মুদ্রায় টিকিটের মূল্য নির্ধারণের দাবিতে তারা এই কর্মসূচি পালন করে। এ সময় বিক্ষোভকারীদের উপর পুলিশ লাঠিচার্জ করলে ছয়জন প্রবাসী আহত হয়। তাদের বৈরুত রফিক হারিরি হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করা হয়েছে।

১৮ ডিসেম্বর আন্তর্জাতিক অভিবাসী দিবস উপলক্ষে আয়োজিত এক প্রেসব্রিফিংয়ে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমেদ জানিয়েছিলেন, লেবাননসহ বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে আটকে পড়া প্রবাসীদের সম্পূর্ণ সরকারি খরচে দেশে ফিরিয়ে নেবে।

এমন ঘোষণার পরদিনই বৈরুতে বাংলাদেশ দূতাবাস তাদের ফেসবুক পেজে জরুরি বিজ্ঞপ্তিতে স্বেচ্ছায় দেশে ফিরতে নাম নিবন্ধনের ঘোষণা দেয়া হয়। এতে ফিস/জরিমানা বাবদ এক লাখ চল্লিশ হাজার লেবানিজ লিরা এবং টিকিট বাবদ চারশ আমেরিকান ডলার জমা দিয়ে দেশে ফিরতে ইচ্ছুকদেরকে নাম নিবন্ধন করতে বলা হয়।

কিন্তু লেবাননে আটকেপড়া প্রবাসীরা ডলারের পরিবর্তে লেবানিজ মুদ্রায় টিকিটের মূল্য নির্ধারণে দূতাবাসের নিকট দাবি জানায়। তাছাড়া ২৫ থেকে ২৮ ডিসেম্বরের সময়সীমা বাড়ানোর দাবিও জানায় তারা।

দূতাবাসের প্রথম সচিব আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, বিনা খরচে নেয়ার ব্যাপারে বাংলাদেশ সরকার থেকে দিকনির্দেশনা পেলে আমাদের বা দূতাবাসের কোনো আপত্তি নেই।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন