নাইজেরিয়ায় মুক্তি পেল অপহরণের শিকার ৩ শতাধিক স্কুলছাত্র

 অনলাইন ডেস্ক 
১৮ ডিসেম্বর ২০২০, ১১:৫৬ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ
নাইজেরিয়ায় মুক্তি পেল অপহরণের শিকার ৩ শতাধিক স্কুলছাত্র
ছবি: এএফপি

নাইজেরিয়ায় বোকো হারামের হাতে অপহরণের শিকার হওয়ার পর মুক্তি পেয়েছেন তিন শতাধিক স্কুলছাত্র। উত্তরপশ্চিমাঞ্চলীয় কাটসিনা রাজ্যের ক্যানকারার একটি গ্রামীণ স্কুল থেকে সপ্তাহখানেক আগে তাদের তুলে নিয়ে যাওয়ার পর বৃহস্পতিবার ছেড়ে দেয়া হয়েছে।

কর্মকর্তাদের বরাতে বার্তা সংস্থা এএফপি ও আল-জাজিরা এমন খবর দিয়েছে। তবে আরও কেউ আটক আছে কিনা; তা পরিষ্কার হওয়া সম্ভব হয়নি।

প্রথম অপরাধী তাদের অপহরণ করেছে বলা হলেও পরবর্তীতে বোকো হারাম দায় স্বীকার করে বিবৃতি দিয়েছে। এর আগে ২০১৪ সালে চিবোক থেকে ২৭৬ স্কুলছাত্রীকে তারা তুলে নিয়ে গিয়েছিল।

ছয়দিনের অগ্নিপরীক্ষার পর স্থানীয় কর্মকর্তারা বলেন, শিক্ষার্থীরা মুক্তি পেয়েছেন। রাজ্য গভর্নর আমিনু বেল্লো মাসারি বলেন, নিরাপত্তা সংস্থার কাছে ৩৪৪ জন আছে, আজ রাতে তাদের কাটসিনায় নিয়ে যাওয়া হবে।

রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন চ্যানেল এনটিএকে দেয়া সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, আমি মনে করি, অধিকাংশ স্কুলছাত্রকে উদ্ধার করা হয়েছে। যদিও সবাইকে পাওয়া যায়নি।

তিনি আরও জানান, পরিবারের সঙ্গে মিলিত হওয়ার আগে উদ্ধার হওয়াদের যথাযথ চিকিৎসা সেবা দেয়া হবে। আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় ও দেশের জন্য এটা বিশাল স্বস্তির বিষয়।

এদিকে বৃহস্পতিবার বোকো হারামের প্রকাশ করা একটি ভিডিও বার্তায় অপহৃত এক শিক্ষার্থীকে বলতে শোনা যায়, ৫২০ জন শিক্ষার্থীকে অপহরণ করা হয়েছে। 

এ দিন নিরাপত্তা বাহিনীর একটি সূত্র বার্তা সংস্থা এএফপিকে বলেছে, অপহৃত শিশুর সঠিক সংখ্যা বলতে পারছেন না কেউ।

অপহরণের পর এই শিশুদের কাটসিনা রাজ্যের কাছে ইয়াংকারা ও জামফারায় নিয়ে যাওয়া হয়। সূত্রটি আরও বলেছে, ঠিক কতজন এখন পর্যন্ত উদ্ধার হয়েছে, তা–ও পরিষ্কার নয়।

প্রেসিডেন্টের মুখপাত্র গার্বা সেহু টুইটারে লিখেছেন, বর্তমানে দেশের উত্তরপশ্চিমাঞ্চল বুহারি সরকারের জন্য চ্যালেঞ্জ হয়ে উঠেছে। তবে এই চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করতে সরকার দৃঢ়প্রতিজ্ঞ। সীমান্ত বন্ধ থাকার পরও বিদ্রোহী গোষ্ঠীগুলোর সদস্য ও সন্ত্রাসীদের অস্ত্রশস্ত্র হাতে পাওয়া দুর্ভাগ্যজনক।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন