এবার উল্টো পথে হাঁটছে মরক্কো, ইসরাইলকে প্রত্যাখ্যান

 অনলাইন ডেস্ক 
২৪ আগস্ট ২০২০, ০৯:৫৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ইহুদি রাষ্ট্র ইসরাইলের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করবে না বলে জানিয়েছে মুসলিম দেশ মরোক্কো। রোববার মরোক্কোর প্রধানমন্ত্রী সাদ এদ্দিন এল ওসমানি বলেন, আমরা ইহুদি রাষ্ট্রের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিককরণ প্রত্যাখ্যান করছি, কারণ এটি ফিলিস্তিনি জনগণের অধিকারকে আরও লঙ্ঘনের জন্য উৎসাহিত করবে। 

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের জামাতা ও প্রেসিডেন্টের শীর্ষ উপদেষ্টা জারেড কুশনার যখন মরক্কো সফর করতে যাচ্ছেন তার আগ মুহূর্তেই প্রধানমন্ত্রী এমন ঘোষণা দেন। 

জারেড কুশনার আগামী কয়েকদিনের মধ্যে কয়েকটি আরব দেশ সফর করার কথা রয়েছে। আরব বিশ্বের বেশ কয়েকটি দেশকে ইসরাইলের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করার ব্যাপারে আগ্রহী করে তোলার চেষ্টা করবেন। 

সম্প্রতি ইসরাইল ও সংযুক্ত আরব আমিরাত সম্পর্ক স্বাভাবিক করার জন্য একটি চুক্তিতে সই করেছেন। আর এর মধ্যস্থতা করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। 

আমিরাত ও ইসরাইলের এ চুক্তি নিয়ে আরব এবং মুসলিম বিশ্বের বেশিরভাগ দেশে ব্যাপক ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। ফিলিস্তিনের সব রাজনৈতিক দল ও সংগঠন একে ফিলিস্তনের ‘পিঠে ছুরি মারা’ বলে অভিহিত করেছে। 

এর আগে ইসরাইলি সংবাদ মাধ্যমে বলা হয়, ইসরাইলের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করণের পথে হাটছে মরক্কো। তারা গোপন সম্পর্ক প্রকাশ্যে নিয়ে আসবে। তবে সবাইকে অবাক করে দিয়ে মরক্কো প্রধানমন্ত্রী ইসরাইলকে প্রত্যাখ্যান করল।

এদিকে সোমবার মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও মধ্যপ্রাচ্যে ৫ দিনের সফরে এসেছেন। সফরের প্রথম দিনেই ইসরাইলে পৌঁছান পম্পেও। 

এক ভিডিও ফুটেজে যুক্তরাষ্ট্রের প্রধান এ কূটনীতিককে মার্কিন পতাকার রঙের মাস্ক পরে তেল আবিব বিমানবন্দরে একটি বিমান থেকে নেমে আসতে দেখা যায়।

ইসরাইলি প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুর সঙ্গে সাক্ষাতের পরই আমিরাত, বাহরাইন ও সুদান সফর করবেন পম্পেও। 

সূত্র: আনাদলু এজেন্সি

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : আরব আমিরাত-ইসরাইল সম্পর্ক