ফাঁড়ির সামনের বাসার ছাদে মুয়াজ্জিনের স্ত্রীর লাশ

 ঝালকাঠি প্রতিনিধি 
২৫ নভেম্বর ২০২০, ০৬:১৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ঝালকাঠি শহরের পুলিশ ফাঁড়ির সামনে একতলা ভবনের ছাদ থেকে শাহনাজ আখতার (৪৪) নামে এক মসজিদের মুয়াজ্জিন স্ত্রীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বুধবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে স্থানীয়দের কাছে খবর পেয়ে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে।

মৃত ওই নারীর নাম শাহনাজ আখতার। তিনি সদর উপজেলার দক্ষিণ পিপলিতা গ্রামের জালাল আহমেদের মেয়ে। তার স্বামী মাওলানা আবদুল আহাদ নেছারাবাদ জামে মসজিদের মুয়াজ্জিন।

স্থানীয়দের ধারণা, ওই নারীকে হত্যার পর লাশ পাশের ছয়তলা ভবনের ছাদ থেকে একতলা ভবনের ছাদে ফেলে দেয়া হয়েছে।

শাহনাজ আখতার নেছারাবাদ এলাকায় ইসলামী ফাউন্ডেশনের গণশিক্ষা কার্যক্রমের একজন শিক্ষক।

স্থানীয়রা জানায়, বেলা ১১টার দিকে জলিল তালুকদারের নির্মাণাধীন একতলা ভবনের ছাদে কিছু পড়ার শব্দ শুনে পথচারীরা গিয়ে এক নারীকে ছাদের ওপর পড়ে থাকতে দেখে পুলিশে খবর দেয়। ঝালকাঠি থানার এসআই  হযরত আলীর নেতৃত্বে একদল পুলিশ গিয়ে ওই নারীর লাশ উদ্ধার করা হয়।

এসআই  হযরত আলী বলেন, নিহত নারীর ডান পা ভাঙ্গা পাওয়া গেছে, পাঁচতলা বা ছয়তলার ছাদ থেকে পড়ে গেলে বা ফেলে দেয়া হলে যে ধরনের জখম হওয়ার কথা সে রকম হয়নি।

ঝালকাঠি থানার ওসি খলিলুর রহমান জানান, পাশের বেলায়েত মুন্সির ছয়তলা ভবনের ছাদ থেকে ওই নারীর একটি বোরকা ও পার্স ব্যাগ উদ্ধার করা হয়েছে। ব্যাগের মধ্যে তার জাতীয় পরিচয়পত্রের ফটোকপি পাওয়া যায়। সেখান থেকে তার পরিচয় নিশ্চিত হওয়া যায়।

তিনি জানান, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পাওয়ার পর তার মৃত্যুর জানা যাবে।

নিহতের দশম শ্রেণিতে পড়ুয়া মেয়ে সাওদা সাথী বলেন, তার মা তাকে নিয়ে বুধবার সকাল ১০টার দিকে ঝালকাঠি সোনালী ব্যাংক থেকে পাঁচ হাজার টাকা উঠান। টাকা উঠিয়ে মা তাকে বাড়ি চলে যেতে বলেন এবং তার মা তাদের দুঃসম্পর্কের আত্মীয় বেলায়েত মুন্সির সঙ্গে দেখা করতে ছয়তলা ভবনে যান। দুপুর ১২টার দিকে এক রিকশাওয়ালা তাকে জানান তার মায়ের লাশ পাওয়া গেছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন